• ঢাকা বুধবার
    ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯

এ যেন পরিযায়ী পাখির হাট

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ১০:০৮ পিএম

এ যেন পরিযায়ী পাখির হাট

শরণখোলা প্রতিনিধি

শীত মানেই পরিযায়ী পাখির আনাগোনা। প্রতিবছরই এ পরিযায়ী পাখির কলকাকলিতে মুখরিত থাকে শরীয়তপুর সদরের তুলাসার বাওড়সহ অন্তত ২০টি জলাশয়।

ভিন্ন ভিন্ন রং ও আকৃতির অন্তত ২৫ প্রজাতির পাখি আসে এখানে। প্রকৃতির এমন মনোরম দৃশ্য দেখে মনের খোরাক জোগাতে ভিড় জমায় হাজারও প্রকৃতিপ্রেমীরা। তবে সহায়ক পরিবেশ না থাকায় দিনদিন কমে যাচ্ছে অতিথি পাখির সংখ্যা।

স্থানীয় ও দর্শনার্থীরা জানান, জলাশয়ের পানির অপরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি বেড়েছে অসাধু পাখি শিকারিদের অপতৎপরতা।

তুলসার বাওড়সহ জেলার জলাশয়গুলোতে সহায়ক পরিবেশ নিশ্চিত করা গেলে অতিথি পাখির সংখ্যা বৃদ্ধিসহ পরিবেশ সংরক্ষণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা যাবে বলে মনে করছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা।

অতিথি পাখির নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ সহায়ক পরিবেশ নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগের কথা জানান স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ প্রশাসন।

শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু জানান, অতিথি পাখির যত্নে যা যা প্রয়োজন তা করব। এর মধ্য দিয়ে পরিবেশের ভারসাম্য কিছুটা হলেও রক্ষা হবে।

শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম হোসেন জানান, এখানে ২০টির মতো স্থানে অতিথি পাখি আসে। জায়গাগুলোকে আমাদের সংরক্ষণ করতে হবে। সবাই মিলে কাজ করলে সেটা করা সম্ভব।

আর্কাইভ