• ঢাকা বুধবার
    ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পাবলিক টয়লেটের অভাবে অস্বস্তিতে মসিকের নারীরা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২৩, ০১:৫৭ এএম

পাবলিক টয়লেটের অভাবে অস্বস্তিতে মসিকের নারীরা

ছবি: সংগৃহীত

ময়মনসিংহ ব্যুরো

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক) এলাকায় নেই পর্যাপ্ত পাবলিক টয়লেট। এতে নগরীতে বিভিন্ন কাজে এসে দীর্ঘ সময় অবস্থান করা মানুষরা পড়ছেন চরম বিপাকে। বিশেষ করে নারীরা অস্বস্তিতে পার করছেন সময়।

রোববার (১৯ নভেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, কয়েক কিলোমিটার পথ পেরিয়ে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধনের কাজে নগরীর দুর্গাবাড়ি এলাকায় আসেন ষাটোর্ধ্ব এক নারী। দীর্ঘ সময় একটি কম্পিউটারের দোকানে বসে জন্ম নিবন্ধনের কাজ করান তিনি। তবে, আশপাশে কোন পাবলিক টয়লেট না থাকায় কয়েক ঘণ্টা সময় বেশ দুর্ভোগেই কাটাতে হয় তার।  

প্রতিদিন এমন নানান কাজে দূর-দূরান্ত থেকে ময়মনসিংহ শহরে আসেন কয়েক হাজার মানুষ। তাদের সবারই একই অবস্থা।

জানা যায়, বিপণী বিতানগুলোতে দীর্ঘ সময় কেনাকাটা করতে আসা নাগরিকদের জন্য শপিং কমপ্লেক্সেও নেই টয়লেটের ব্যবস্থা। কোনও কোনও ভবনে স্টাফদের জন্য ব্যবস্থা থাকলেও তা ব্যবহারের অনুপোযোগী। পাবলিক টয়লেট না থাকায় বেশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছে নারীরা।

নারীদের অভিযোগ, পাবলিক টয়লেট না থাকায় তারা অনিরাপদ। যে কোনও জায়গায় তো আর নারীরা যেতে পারে না। এমন দুর্ভোগ যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। অনেক সময় কারো বাসা বাড়িতে গেলেও সেখানে অপমানিত হতে হয়, অস্বস্তিতে পড়তে হয়।

নাগরিক দুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে দ্রুত পর্যাপ্ত পাবলিক টয়লেট স্থাপনের দাবি নাগরিক আন্দোলনের।

নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি নুরুল আমীন কালাম বলেন, এরকম অব্যবস্থাপনা চলতে দেয়া যায় না। সিটি করপোরেশন মানে সেখানে সব নাগরিক সুযোগ-সুবিধা থাকবে। কিন্তু এমন স্পর্শকাতর একটি বিষয়ে খুব জরুরি ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাই।

তবে, পর্যাপ্ত খালি জায়গা না থাকায় দ্রুতই এর সমাধান সম্ভব নয় বলে জানায় নগর কর্তৃপক্ষ।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, পাবলিক টয়লেট নির্মাণে একটু সময় লাগবে আমাদের। নগরীতে পর্যাপ্ত জায়গা নেই। জায়গার অভাবে আমরা কাজ করতে পারছি না। সময় সুযোগ এলে ব্যবস্থা নেয়া হবে দ্রুত।

২০১৮ সালে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের যাত্রা শুরুর পর থেকে বিভিন্ন রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ করা হলেও জায়গার অভাবে পাবলিক টয়লেট নির্মিত হয়েছে মাত্র তিনটি যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম।

 

সিটি নিউজ ঢাকার ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

 

জেকেএস/

আর্কাইভ