• ঢাকা মঙ্গলবার
    ১৬ জুলাই, ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১

প্রতিদিন এক গ্লাস আদা পানিতেই বিদায় নেবে যেসব রোগ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৭, ২০২৩, ০৫:১১ পিএম

প্রতিদিন এক গ্লাস আদা পানিতেই বিদায় নেবে যেসব রোগ

লাইফস্টাইল ডেস্ক

বিশ্বজুড়ে অসংখ্য মানুষ আদার নিরাময়ক্ষমতার স্বাক্ষী। আদা কাচা, রান্নাসহ নানাভাবেই খাওয়া যায়। এই মসলা কিছু পরিচিত অসুখের ঘরোয়া সমাধান হিসেবেও কাজ করে। আদার এই সব গুণাগুণের কারণে আয়ুর্বেদ এবং হোমিওপ্যাথিতেও এর ঠাই হয়েছে। কারণ আদা হলো অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যের পাওয়ার হাউস, যা আপনার ত্বক, চুল এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য চমৎকার। প্রতি দিন এক গ্লাস আদা দিয়ে ফোটানো পানি খেলে শরীর থেকে নানা রোগ বিদায় নেবে এবং সুস্থ জীবন-যাপনে সাহায্য করবে।

প্রতিদিন আদা পানি খেতে শুরু করলে কী হতে পারে? কি কি উপকার মিলতে পারে? চলুন জেনে নেওয়া যাক-

কোলেস্টেরল লেভেল কমায়

শরীরে উচ্চ মাত্রায় এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়। আদার জল কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ফলে হার্টের রোগ ও স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকিও কমে। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রতিদিন আদা খান তাদের শরীরে ট্রাইগ্লিসারাইড এবং খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। এ ছাড়া, রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে আদা পানি।

আদা জল অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ আদার জল অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পূর্ণ, যা ফ্রি ব়্যাডিকেলের হাত থেকে আমাদের শরীরকে বাঁচায় এবং ক্যান্সার, হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

আদায় অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাই, প্রতিদিন আদার পানি পান রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এটি সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা ও ফ্লু-র চিকিৎসায়ও দারুণ কাজ করে।

ওজন কমায়

নিয়মিত আদার পানি পান শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমাতে দারুণ কার্যকর। এটি দ্রুত চর্বি কমায়। খাবার ইচ্ছেও নিয়ন্ত্রণ করে। গবেষণায় দেখা গেছে, আদা দীর্ঘ সময় পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে। তাছাড়া, রক্তে উচ্চ শর্করার মাত্রা খাবার ইচ্ছে আরও বাড়িয়ে তোলে। ফলে দ্রুত ওজন বাড়তে থাকে। আদার পানি রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং খাওয়ার ইচ্ছে কমায়। তাই, দ্রুত ওজন কমাতে প্রতিদিন পান করুন আদা পানি।

চুল ও ত্বকের জন্য ভালো আদা পানি

ত্বকের নানা সমস্যা দূর করে আদা পানি। ত্বক উজ্জ্বল করে এবং টানটান রাখে আদা। ত্বকে রিঙ্কেলস পড়তে দেয় না। আদার অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য ত্বককে সমস্ত ধরনের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে। 

ত্বককে বিভিন্ন রোগের হাত থেকে বাঁচায় এবং ত্বক সুস্থ ও পরিষ্কার রাখে। এ ছাড়া, আদায় ভিটামিন এ এবং সি-এর উপস্থিতি চুলের গঠন উন্নত করে। রক্ত পরিষ্কার রাখে।

হজম শক্তি বাড়ায়

দিনে একবার করে আদার সঙ্গে পানি পান পাচনতন্ত্রকে শক্তিশালী করে এবং বদহজম, বমি বমি ভাব, কোষ্ঠকাঠিন্য, গ্যাস, অ্যাসিডটি হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। হজম ক্ষমতা আরও উন্নত হয়।

আদা পানি তৈরির পদ্ধতি

তিন কাপ পানিতে আদা থেঁতো করে দিয়ে দিন। পানি ভালো ভাবে ফুটে গেলে গ্লাসে ছেঁকে নিন। এতে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে পান করুন।

আর্কাইভ