• ঢাকা বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৩০ ভাদ্র ১৪২৯

বিজাতীয় ও অপসংস্কৃতির সবকিছু বর্জন করতে হবে : রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ০৮:০৭ পিএম

বিজাতীয় ও অপসংস্কৃতির সবকিছু বর্জন করতে হবে : রাষ্ট্রপতি

শিল্পকলা একাডেমিতে পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি ভার্চুয়ালি যুক্ত হন

আদালত প্রতিবেদক

অপ্রয়োজনীয়, বিজাতীয় ও অপসংস্কৃতির সবকিছু বর্জন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেন, ‘কালের বিবর্তনে সমাজে অনেক পরিবর্তন এসেছে। সংস্কৃতিতেও লেগেছে এর ছোঁয়া। আকাশ সংস্কৃতির বদৌলতে প্রতিনিয়ত আমাদের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ভিনদেশি সংস্কৃতির অনুপ্রবেশ ঘটছে। তাই বিদেশি বা আকর্ষণীয় হলেই সবকিছু লুফে নেওয়ার মানসিকতা পরিহার করতে হবে। আমাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের সঙ্গে যতটুকু সামঞ্জস্য ততটুকুই গ্রহণ করতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন রাষ্ট্রপতি। এদিন ১৮ ব্যক্তি এবং দুই সংগঠনকে শিল্পকলা পদক দেওয়া হয়।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘সামাজিক অবক্ষয় রোধে সংস্কৃতি হচ্ছে রক্ষাকবচ। সমাজ থেকে জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ, হিংসা-বিদ্বেষ দূর করতে সংস্কৃতির বিকাশ খুবই জরুরি। গ্রাম থেকে শহর, নিম্নবিত্ত থেকে উচ্চবিত্ত প্রতিটি স্তরে সংস্কৃতির চর্চা যত বেশি হবে, সমাজও ততবেশি আলোকিত হবে। আলোকিত সমাজই পারে মানবিক সমাজ গড়তে, একটি দেশ ও জাতির কাঙ্ক্ষিত সমৃদ্ধি ও কল্যাণ নিশ্চিত করতে।’

তিনি বলেন, ‘শিল্পীর কদর ছাড়া শিল্পের বিকাশ কোনোভাবেই সম্ভব নয়। যে জাতি এটি করেছে, সে জাতির শিল্প-সংস্কৃতি বিশ্বব্যাপী সমাদৃত হয়েছে। বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী জীবন ঘনিষ্ঠ শিল্প সংস্কৃতির বিকাশ ও প্রসারের লক্ষ্যে শিল্পীদের মূল্যায়নের যে পদক্ষেপ শিল্পকলা একাডেমি গ্রহণ করেছে তা আমাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।’

অনুষ্ঠানে সংস্কৃতির বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৯ ও ২০২০ সালে ১৮ ব্যক্তি এবং দুই সংগঠনকে শিল্পকলা পদক দেওয়া হয়।

২০১৯ সালের শিল্পকলা পদকপ্রাপ্তরা হলেন নাট্যকলায় মাসুদ আলী খান, কণ্ঠসংগীতে হাসিনা মমতাজ, চারুকলায় আবদুল মান্নান, চলচ্চিত্রে অনুপম হায়াৎ, নৃত্যকলায় লুবনা মরিয়ম, লোকসংস্কৃতিতে শম্ভু আচার্য্য, যন্ত্রসংগীতে মো. মনিরুজ্জামান, ফটোগ্রাফিতে এম এ তাহের, আবৃত্তিতে হাসান আরিফ ও সৃজনশীল সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে ছায়ানট।

২০২০ সালের পদকপ্রাপ্তরা হলেন কণ্ঠসংগীতে মাহমুদুর রহমান বেণু, চারুকলায় শহিদ কবীর, যন্ত্রসংগীতে মো. সামসুর রহমান, ফটোগ্রাফিতে আ ন ম শফিকুল ইসলাম স্বপন, চলচ্চিত্রে শামীম আখতার, নাট্যকলায় মলয় ভৌমিক, আবৃত্তিতে ডালিয়া আহমেদ, লোকসংস্কৃতিতে শাহ আলম সরকার, নৃত্যকলায় শিবলী মোহাম্মদ ও সৃজনশীল সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে দিনাজপুর নাট্য সমিতি।

২০১৩ সাল থেকে শিল্পকলা পদক দিয়ে আসছে শিল্পকলা একাডেমি। করোনা মহামারির কারণে ২০১৯ ও ২০২০ সালের পদক পিছিয়ে এ বছর দেয়া হয়।

এআরআই

আর্কাইভ