• ঢাকা বুধবার
    ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯

মিরপুরের মেট্রোরেল যাত্রীদের জন্য ফের সুখবর

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২৩, ০৯:২৮ এএম

মিরপুরের মেট্রোরেল যাত্রীদের জন্য ফের সুখবর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

মিরপুর পল্লবী এলাকায় বসবাস করা মেট্রোরেলে যাতায়াতকারীদের জন্য সুখবর। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল থেকেই পল্লবী স্টেশনে থামবে মেট্রোরেল। ফলে ওই স্টেশন থেকে যাত্রীরা উঠানামা করতে পারবেন।
মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 
তিনি জানান, তিনটি স্টেশনে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করবে। তবে টিকিট কাটার সুবিধার্থে যাত্রীদের জন্য গেট খোলা হবে সকাল ৮টা থেকে। ট্রেনগুলো আগের মতোই ১০ মিনিট পরপর চলাচল করবে।
এম এ এন সিদ্দিক বলেন, আপাতত মেট্রোরেলের চলাচলের সময় বাড়ানোর পরিকল্পনা নেই। তবে নতুন নতুন স্টেশন চালু হবে। ২৬ মার্চের মধ্যে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সব স্টেশনে মেট্রোরেল থামানোর পরিকল্পনা আছে।
ডিএমটিসিএল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যাত্রীদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই ট্রেন চলাচল শুরুর আধা ঘণ্টা আগে গেট খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। শুরু থেকে মেট্রোরেল দিনে চার ঘণ্টা চলাচল করছে। শুধু বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে ২২ জানুয়ারি সকাল আটটা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত মেট্রোরেল চলাচল করেছে।
গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেলের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরদিন ২৯ ডিসেম্বর থেকে বাণিজ্যিকভাবে যাত্রা শুরু করে মেট্রোরেল। এর পর থেকে মেট্রোরেল উত্তরা উত্তর (দিয়াবাড়ী) থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সরাসরি চলাচল করছে। আর ২৫ জানুয়ারি থেকে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত যাতায়াতের সময় পল্লবী স্টেশনেও থামবে মেট্রোরেল।


২০১২ সালে নেয়া মেট্রোরেল প্রকল্প এক দশক পর আংশিক চালু হয়েছে। চালু হওয়া মেট্রোরেল প্রকল্পটির নাম এমআরটি লাইন-৬। উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত এর দৈর্ঘ্য ২১ কিলোমিটারের বেশি। এর মধ্যে ১৭টি স্টেশন থাকছে। মেট্রোরেল নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ৩৩ হাজার ৪৭২ কোটি টাকা। মেট্রোরেলের প্রথম পরীক্ষামূলক চলাচল শুরু হয় ২০২১ সালের আগস্টে। ১৬ মাস পর গত ২৮ ডিসেম্বর সাতটি স্টেশনের মধ্যে মেট্রোরেল চালু হয়।

 

এনএমএম /এএল

আর্কাইভ