• ঢাকা মঙ্গলবার
    ১৬ জুলাই, ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি নিয়ে চিন্তিত নন শ্রীরাম

প্রকাশিত: অক্টোবর ২১, ২০২২, ০২:২৬ এএম

বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি নিয়ে চিন্তিত নন শ্রীরাম

ক্রীড়া ডেস্ক

বিশ্বকাপ যত এগিয়ে আসছে বাংলাদেশের ভাবনা তত বাড়ছে। টাইগারদের হয়ে ইনিংস শুরু করবেন কোন দুই ব্যাটার সে প্রশ্নের উত্তর মেলেনি এখনো। তবে অন্যদের কাছে চিন্তার বিষয় হলেও ওপেনিং জুটি নিয়ে কোনো চিন্তাই করছেন না বাংলাদেশের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরাম।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনের অ্যালান বোর্ডার মাঠে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এমনটি জানিয়েছেন শ্রীরাম। বাংলাদেশকে দল হিসেবে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেছেন, ‘ওপেনিং নিয়ে আমরা সুনির্দিষ্ট কিছু চাইছি কেন? আমার প্রশ্ন। আগেও বলেছি, দল হিসেবে বাংলাদেশের দিকে তাকাতে হবে আমাদের। ওপেনিং নিয়ে আমরা এতটা পড়ে আছি কেন? এত প্রশ্নের অর্থ দেখি না। দল হিসেবে বাংলাদেশ নিয়ে ভাবতে হবে আমাদের। আমাদের শিখতে হবে কীভাবে ম্যাচ জিততে পারি। আমি যেটা বলে আসছি, ম্যাচের পরের ভাগ নিয়ে ভাবতে হবে আমাদের। দ্বিতীয় ১০ ওভারের ব্যাটিং, দ্বিতীয় ১০ ওভারের বোলিং ভাবতে হবে।’

সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ফিক্সড ব্যাটিং অর্ডার খুব জরুরি নয়, তার চেয়ে দল হিসেবে খেলাটাই গুরুত্বপূর্ণ। এটি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে অস্ট্রেলিয়া দলকে উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরেছেন শ্রীরাম। তিনি বলেছেন, ‘যতই আমরা দল হিসেবে খেলব, ততই ছেলেরা নিজেদের ভূমিকা বুঝতে পারবে। বিশ্বজুড়ে তাকান, সব দলই ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে খুবই উন্মুক্ত। ফিঞ্চ চার নম্বরে ব্যাট করছে, ক্যামেরন গ্রিন ওপেন করছে। আমাদেরও ফ্লেক্সিবল হতে হবে। টি-টোয়েন্টিতে ফিক্সড ব্যাটিং অর্ডার জরুরি নয়। ম্যাচ আপ নিয়ে ভাবতে হবে। যেমন, আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেললে মুজিবের বিপক্ষে দুজন বাঁহাতি রাখাই যাবে না (ওপেনিংয়ে), একজন ডানহাতি লাগবেই। প্রোপার ওপেনারের চেয়েও আরও অনেক বেশি গভীর ভাবনা চলছে এখানে। সেসব ভাবতে হবে। প্রোপার ওপেনার বলতে কী বোঝাচ্ছেন, সেটাই বরং আলোচনার ব্যাপার।’

সর্বশেষ নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের ওপেনাররা ভালো করেছেন এমন যুক্তিও তুলে ধরেছেন শ্রীরাম। এ ব্যাপারে তিনি বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ডে প্রতি ম্যাচেই আমরা ৬ ওভারে ৪০ রান পেয়েছি। ওপেনিং নিয়ে দুর্ভাবনা আছে কেন মনে করছেন, এটাই বরং আমার প্রশ্ন। নিউজিল্যান্ডে প্রতিটি দলের জন্য প্রথম ৬ ওভারে ৪০ রান ছিল প্রায় পার স্কোর এবং বাংলাদেশ প্রতি ম্যাচেই সেটা করেছে। আপনারা তাই কেন মনে করছেন যে ওপেনিং নিয়ে দুশ্চিন্তা আছে, এটাই আমার প্রশ্ন। আমার মনে হয়, আমাদের ওপেনিংয়ে অনেক বেশি মনোযোগ দেয়া হচ্ছে।’

গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকেই ওপেনিং জুটি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। এতটাই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে যে, নিয়মিত ওপেনারদের নিচের দিকে নামিয়ে মেকশিফট ওপেনার খেলানো হচ্ছে। যার শুরুটা এশিয়া কাপে হয়েছে। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও হয়তো তেমনি দেখা যেতে পারে। ২৪ অক্টোবর নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপের মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ।

জেডআই/

আর্কাইভ