• ঢাকা বুধবার
    ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯

বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নৌ যাত্রা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ১০:২৪ পিএম

বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নৌ যাত্রা

বরগুনা প্রতিনিধি

খাকদোন ও খরস্রোতা বিষখালী নদীর বুকে সারি সারি চলছে ১১ টি নৌকা। নৌকাগুলোতে টাঙানো হয়েছে নানা রঙের নিশানা। প্রথম নৌকায় নিশানাগুলোর সামনে টাঙানো হয়েছে বাংলাদেশের পতাকা। প্রত্যেকটি নৌকারই রয়েছে আলাদা আলাদা নাম। নৌকা গুলো বহন করছে  দক্ষিনাঞ্চলের হয়লা, যাত্রা, জারিগান, পালাগান, বাউলগান, নৈলল্লা, পুঁথিপাঠ, রয়নী, রামায়ন, নীলনৃত্য এবং সঙ্গে বহন করছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতি। বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এভাবেই খাকদোন ও খরস্রোতা বিষখালী নদীতে বাংলা নাট্যের নৌযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ২.৩০ মিনিটের সময় প্রথমে বরগুনা নৌকা যাদুঘরের সামনে থেকে রালি করে বরগুনা লঞ্চঘাটে এসে শেষ হয়। সেখান থেকে খাকদোন নদীর বুক দিয়ে এ নৌযাত্রা শুরু হয়। 

নৌকাগুলোতে যারা সওয়ারি হয়েছে সবাই ছিলেন সাংস্কৃতিক কর্মী। লাল নীল নিশানার নৌকাগুলো যখন একসঙ্গে ছুটে যাচ্ছিল, তখন রঙিন হয়ে ওঠে খাকদোন ও খরস্রোতা বিষখালীর বুক। ফুটে ওঠে আবহমান বাংলার শাশ্বত রূপ। যাত্রাপথে নৌকাতেই নেচেগেয়ে সবাইকে মাতিয়ে রাখেন সাংস্কৃতিক কর্মীরা। এই নৌবহর দেখতে খাকদোন ও বীষখালীর তীরে ভিড় করে নানা বয়সী মানুষ।

এটি খাকদোন নদী হয়ে খরস্রোতা বিষখালী নদীর ঘুরে বড়ইতলা ফেরিঘাটে এসে শেষ হয়। এরপর ফেরিতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

নৌ যাত্রায় শামিল হওয়া রাজিব, সুদেব, সুরভী, তন্নী, সোনিয়া সহ কয়েকজন সাংস্কৃতিক কর্মীরা বলেন- আমাদের দেশের ঐতিহ্য সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ৷ কিন্তু আমরা বর্তমান প্রজন্ম আমাদের ঐতিহ্য সম্পর্কে অনেককিছুই জানি না। আমরা এই প্রজন্ম সবসময় মোবাইল নিয়েই থাকি। সেখানে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের আয়োজিত এ নৌযাত্রায় অংশ নিতে পেরে আমরা সকলে আনন্দিত। এখনে না আসলে জানতে পারতাম না যে আমাদের পুরোনো দিনের এই সংস্কৃতির বিষয়ে।

সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দুর্বারের সাধারন সম্পাদক খান নাঈম বলেন,  বরগুনায় এই ধরনের আয়োজন এই প্রথম। দেশিয় ঐতিহ্য রক্ষায় ও নতুন প্রজন্মকে আমাদের সংস্কৃতি সম্পর্কে জানাতে এ আয়োজন ভুমিকা রাখবে। এ আয়োজনকে আমরা সাধুবাদ জানাই।

বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু বলেন, বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ। আমাদের এসব নদী হারাতে বসেছে জৌসুল। দখল হয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। বিগত প্রায় চার দশকের বেশি সময় ধরে দেশব্যাপী বাংলার ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি নিয়ে কাজ করে আসছে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার তাই বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের ৪০ বছরপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে নদী রক্ষা এবং পুরনো ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে সকলকে উদ্বুদ্ধ করতে এই নৌযাত্রার আয়োজন। পর্যায়ক্রমে দেশের সব জায়গায় এই সাংস্কৃতিক অভিযাত্রা করা হবে।

এবি//সিটি নিউজ ঢাকা//

আর্কাইভ