• ঢাকা সোমবার
    ০২ অক্টোবর, ২০২৩, ১৭ আশ্বিন ১৪৩০

আমার স্বামী শারীরিকভাবে অক্ষম, অনেক ডাক্তার দেখিয়েও লাভ হয়নি: সানাই

প্রকাশিত: জুন ৪, ২০২৩, ০১:৪৭ পিএম

আমার স্বামী শারীরিকভাবে অক্ষম, অনেক ডাক্তার দেখিয়েও লাভ হয়নি: সানাই

বিনোদন ডেস্ক

দাম্পত্য কলহ ও বিয়েবিচ্ছেদ নিয়ে কয়েক সপ্তাহ ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত-সমালোচিত হচ্ছেন মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব।

গত ২২ মে প্রথম নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ‘বিচ্ছেদ স্বাভাবিক ব্যাপার, জীবনেরই অংশ’ শীর্ষক স্ট্যাটাস দিয়ে ডিভোর্সের ইঙ্গিত দেন তিনি। এর মাঝে বুধবার রাত প্রায় ৯টার দিকে ফেসবুক পেজে স্বামী ব্যাংক কর্মকর্তা আবু সালেহ মুসার সঙ্গে ডিভোর্সের অফিশিয়াল কাজ শুরুর কথা নিশ্চিত করেন সানাই। এবার জানালেন, স্বামীর আবু সালেহ মুসার শারীরিক অক্ষমতা এবং নির্যাতনের কারণে তার থেকে আলাদা হয়েছেন তিনি।

সানাই বলেন, ‍‍`আমার স্বামী শারীরিক ভাবে অক্ষম। অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি। কাউন্সিলিংয়ের কাছে নিয়ে গেছি কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। বিয়ের রাতেই তার সমস্যার কথা জানতে পারি। বিষয়টি মেনে নিয়ে চিকিৎসা করাই। কিন্তু লাভ হয়নি। সেও অনেক হারবাল ঔষধ খেয়েছেন। তাদেও লাভ হয়নি। তার পরিবার তার ব্যাপারে উদাসীন। তারা আমার মিডিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলে। তাদের সন্তান অক্ষম জানার পরও আমাকে এভাবেই মানিয়ে নিতে বলে। এভাবে তো আর চলতে পারে না। তাই বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেওয়া।‍‍`


এদিকে সম্প্রতি তার স্বামী আবু সালেহ মুসা সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ করেছেন- তাকে মারধর করেছেন সানাই। এতে তার কিডনিতে সমস্যা হয়েছে।

এ নিয়ে শুক্রবার ফেসবুকেও নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন সানাই। তার দাবি, তার স্বামীর দাবি সত্যি নয়, তাকে তিনি মারধর করেননি।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ২৭ মে পারিবারিক আয়োজনে অনেকটা গোপনেই বিয়ে করেন আবু সালেহ মুসাকে। বিয়ের পরই শোবিজকে বিদায় জানিয়ে ধর্ম-কর্মে মনোযোগী হয়েছেন এই অভিনেত্রী।


এডিএস/

আর্কাইভ