• ঢাকা মঙ্গলবার
    ১৬ জুলাই, ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে মুল পর্বের আশায় উইন্ডিজ

প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২২, ১২:২৭ এএম

জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে মুল পর্বের আশায় উইন্ডিজ

প্রতীক ওমর

দারুন শুরুর পর ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে পথ হারাতে বসেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ দিকে রভম্যান পাওয়েল এবং আকেল হোসেনের ঝড়ো ইনিংসে লড়াইয়ের পুঁজি পায় দুইবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নরা। সুপার টুয়েলভে যাওয়ার লড়াইয়ে টিকে থাকতে বাকি কাজটা সারেন আলজারি জোসেফ-জেসন হোল্ডাররা। জিম্বাবুয়েকে ৩১ রানে হারিয়ে সুপার টুয়েলভে যাওয়ার আশা টিকিয়ে রাখল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরুর আভাস দেন দুই ওপেনার কাইল মায়ার্স ও জনসন চার্লস। তবে, ইনিংসের চতুর্থ ওভারে দলীয় ২৮ রানে কাইল মায়ার্সের উইকেট হারায় ক্যারিবিয়ানরা। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে এভিন লুইসকে সঙ্গে নিয়ে ৪৯ রানের জুটি গড়েন জনসন চার্লস। দলীয় ৭৭ রানে ১৮ বলে ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন এভিন লুইস। এরপর দলীয় ৯০ থেকে ১০১ রানের মধ্যে চার ব্যাটারকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অধিনায়ক নিকোলাস পুরান ৯ বলে ৭, শামারাহ ব্রুকস ৩ বলে ০ ও জেসন হোল্ডার ৩ বলে ৪ রান করে সঘরে ফিরে যান।

অন্যদিকে, জনসন চার্লস দলীয় ৯৭ রানে ৩৬ বলে ৪৫ রান করে আউট হন। এরপর রভম্যান পাওয়েল  আকিল হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে ৪৯ রানের জুটি গড়ে চাপ কিছুটা সামাল দেন। ইনিংসের শেষ ওভারের চতুর্থ বলে দলীয় ১৫০ রানে ২১ বলে ২৮ রান করে আউট হন রভম্যান পাওয়েল।

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে ক্যারিবিয়ানরা। জিম্বাবুয়ের পক্ষে সিকান্দার রাজা ৩টি ও মুজারবানি নেন ২টি উইকেট।

১৫৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকে জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনার  রেজিস চাকাভা ও ওয়েসলি মাধেভেরে। তবে, দ্রুতই উইকেট হারায় তারা। তৃতীয় ওভারে দলীয় ২৯ রানে ৯ বলে ১৩ রান করে আউট হন রেজিস চাকাভা। এরপর টনি মুনুয়ঙ্গাকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন ওয়েসলি মাধেভেরে। কিন্তু দলীয় ৪৭ রানে আবারও ছন্দ পতন হয় জিম্বাবুয়ের।

৬ বলে মাত্র ২ রান করে আউট হন টনি মুনুয়ঙ্গা। দলীয় ৪৮ থেকে ৬৪ রানের মধ্যে আরও তিন ব্যাটারকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় জিম্বাবুয়ে। শন উইলিয়ামস ২ বলে ১ ,ওয়েসলি মাধেভেরে ১৯ বলে ২৭ ও আগের ম্যাচের জয়ের নায়ক সিকান্দার রাজা ৮ বলে ১৪ করে সাজঘরে ফিরে যান।

এরপর দলীয় ৭৯ রানে মিল্টন শুম্বা ৯ বলে ২ রান করে আউট হলে জয়ের আশা ফিকে হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের। আর দলীয় ৯২ রানে রায়ান বার্ল আউট হলে জিম্বাবুয়ের জয়ের শেষ প্রদীপও নিভে যায়। ১৯ বলে ১৭ রান করে আউট হন তিনি। এরপর লুক জঙ্গুই জয়ের আশা জাগিয়ে দলীয় ১২০ রানে ২২ বলে ২৯ রান করে আউট হন তিনি। শেষ পর্যন্ত ১৮ ওভার ২ বলে ১২২ রানে গুটিয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। ফলে ৩১ রানের জয়ে সুপার টুয়েলভের লড়াইয়ে টিকে থাকলো ক্যারিবিয়ানরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আলজারি জোসেফ ১৬ রান খরচায় নেন৪ উইকেট। আর জেসন হোল্ডার নেন ৩টি উইকেট।    

জেডআই/

আর্কাইভ