• ঢাকা শুক্রবার
    ২১ জুন, ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

চিয়া সিড কেন খাবেন?

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২৩, ০৬:৫৪ পিএম

চিয়া সিড কেন খাবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক

পৃথিবীতে যত পুষ্টিগুণসম্পন্ন খাবার রয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে চিয়া সিড বা দানা (বীজ)। চিয়া সিডকে সুপার ফুডও বলা হয়ে থাকে। মধ্য আমেরিকায় এই বীজের আদি জন্মস্থান। যা একসময় সেখানকার অধিবাসীদের খাদ্য তালিকায় ছিল। তারপর তা ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়ে পৃথিবীব্যাপী। বর্তমানে আমাদের দেশেও এই বীজ উৎপাদন শুরু হয়েছে।

তিলের দানার মতো ছোট এই বীজ সাদা ও কালো উভয় রঙের হয়। চিয়া সিডের সবচেয়ে ভালো গুণ হচ্ছে এটি সব ধরনের আবহাওয়ায় হয় এবং পোকামাকড় সহজে আক্রমণ করতে পারে না। অনেকেই চিয়া সিডকে ব্যাসিল সিড বা তোকমার সঙ্গে গুলিয়ে ফেলে। কিন্তু চিয়া সিড তোকমার চেয়ে আকারে ছোট।

চিয়া সিডের পুষ্টিগুণ

পুষ্টিবিদরা চিয়া দানাকে সুপার ফুড বলে থাকেন। তারা বলছেন, দুধে যেই পরিমাণ ক্যালসিয়াম আছে, তার চেয়ে পাঁচ গুণ ক্যালসিয়াম আছে এই চিয়া বীজে। এ ছাড়া আরও রয়েছে ভিটামিন ‘সি’, যার পরিমাণ কমলাতে থাকা ভিটামিন ‘সি’-এর চেয়ে সাত গুণ।

রয়েছে আয়রন। আয়রনের পরিমাণ পালং শাকের চেয়ে তিন গুণ। পটাশিয়াম রয়েছে কলার চেয়ে দ্বিগুণ পরিমাণে চিয়া সিডে এবং ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড আছে স্যালমন মাছের চেয়ে আট গুণ পরিমাণে।

চিয়া সিডের উপকারিতা

সুপার ফুড চিয়া বীজের রয়েছে অনেক উপকারিতা। চলুন, উপকারিতাগুলো জেনে নেওয়া যাক—

# চিয়া সিড দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

# এটি কর্মক্ষমতা ও শক্তি বাড়ায়।

# চিয়া সিড দেহের ওজন কমাতে বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখে।

# এটি ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি কমায়।

# অধিক ক্যালসিয়ামসম্পন্ন হওয়ায় হাড়ের শক্তি বৃদ্ধিতে এটির ভূমিকা রয়েছে।

# প্রদাহজনিত সমস্যা দূর করতে চিয়া সিড উপকারী।

# কোলন বা মলাশয় পরিষ্কার রাখে চিয়া সিড। ফলে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে।

# ভালো ঘুমের ক্ষেত্রেও এটি উপকার করে।

# প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে এই বীজ।

# হজমশক্তি বাড়াতেও এই বীজ কার্যকর।

# হাঁটুর ব্যথা ও অন্যান্য জয়েন্টের ব্যথা দূর করে এই বীজ।

# শরীর থেকে বিষাক্ত বা টক্সিন জাতীয় পদার্থ বের করে দিতে এই বীজের ভূমিকা রয়েছে।

# ত্বক, চুল ও নখ সুন্দর করতেও চিয়া সিড ভূমিকা রাখে।

চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম

# চিয়া সিড খাওয়া যেতে পারে শরবতে মিশিয়ে। এটি বেশ জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি। টক দই, শসার সঙ্গে চিয়া সিড মিশিয়ে খেতে পারেন। এ ছাড়া ব্লেন্ডারে কলা, খেজুর, বাদাম ইত্যাদির সঙ্গে এই বীজ মিশিয়ে খেতে পারেন।

# সালাদ হিসেবেও চিয়া সিড খাওয়া যায়। সালাদ হিসেবে অন্য নিয়মিত উপাদানের সঙ্গে এই বীজ যোগ করে খাওয়া যায়।

# নারিকেলের পানি বা পছন্দমতো অন্য ফলের রসের সঙ্গে ২ থেকে ৩ চামচ পরিমাণ চিয়া সিড মিশিয়ে খেতে পারেন।

এ ছাড়া ওজন কমানোর জন্য অত্যন্ত কার্যকর এই বীজ চাইলে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে ও রাতে ঘুমানোর আগে পানি ও ২-৩ চামচ লেবুর রসের সঙ্গে ১-২ চামচ চিয়া সিড খেলে তা ওজন কমাতে ভালো ভূমিকা রাখে।

 

জেকেএস/

আর্কাইভ