• ঢাকা বৃহস্পতিবার
    ২৫ জুলাই, ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে এক মাসে কতটুকু সাড়া মিললো

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২৩, ০৭:০৭ পিএম

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে এক মাসে কতটুকু সাড়া মিললো

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

দেশে প্রথমবারের মতো সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি (স্কিম) চালুর এক মাস পেরিয়েছে। রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত এক মাসে এই কর্মসূচির আওতায় এসেছেন ১২ হাজার ৯৭০ জন। এ সময় জমা হয়েছে ৭ কোটি ৬৭ লাখ ২২ হাজার ৫০০ টাকা।

জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের সদস্য গোলাম মোস্তফা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রথম এক মাসে পেনশন স্কিমে মানুষের বেশ ভালোই সাড়া মিলেছে। যদিও এ ধরণের একটি প্রোগ্রামের জন্য এক মাস বেশি সময় না। কিন্তু যারা যুক্ত হয়েছেন তারা স্বতঃস্ফূর্ত তাগিদে যুক্ত হয়েছেন। এ বিষয়ে আরও প্রচারণার প্রয়োজন আছে।

তবে পেনশন স্কিমে নিবন্ধনের সংখ্যা আরও অনেক বেশি বলে জানান তিনি। এর কারণ হিসেবে গোলাম মোস্তফা বলেন, নিবন্ধন করেও অনেকে টাকা জমা দেয়নি। আর চাঁদা জমা না দেয়া পর্যন্ত কাউকে পেনশন স্কিমে যুক্ত বলে ধরা হয় না।

জানা গেছে, প্রথম মাসে যুক্ত ব্যক্তিদের প্রায় অর্ধেকই প্রগতি স্কিমের বা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী, যার সংখ্যা ৬ হাজার ২০০ জন। চাঁদা দেয়া মানুষের অন্তত ১০ গুণ স্কিমগুলোতে নিবন্ধন করেছেন। সরকারের লক্ষ্য, ১০ কোটি মানুষকে পেনশন স্কিমের আওতায় আনা।

এর আগে গত ১৭ আগস্ট গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পর জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইট www.upension.gov.bd চালু করা হয়।

এতে ৪টি স্কিমে অংশগ্রহণের জন্য অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম ও মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস, ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড ও ব্যাংকে টাকা জমা দেয়া শুরু হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, সমাজের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের কথা বিবেচনায় নিয়ে এ সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি চালু করা হচ্ছে। আপাতত চার শ্রেণির জনগোষ্ঠীর জন্য এতে চারটি স্কিম থাকছে। এর মধ্যে রয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য প্রবাস স্কিম, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের জন্য প্রগতি স্কিম, স্বকর্মে নিয়োজিত নাগরিকদের জন্য সুরক্ষা স্কিম এবং স্বকর্মে নিয়োজিত স্বল্প আয়ের নাগরিকদের জন্য সমতা স্কিম।

সর্বজনীন পেনশন স্কিমে ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী একজন সুবিধাভোগী ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত এবং ৫০ বছরের বেশি বয়স্ক একজন সুবিধাভোগী ন্যূনতম ১০ বছর চাঁদা দেয়া সাপেক্ষে আজীবন পেনশন সুবিধা ভোগ করবেন। পেনশনে থাকাকালীন ৭৫ বছর বয়স পূর্ণ হওয়ার পূর্বে মৃত্যুবরণ করলে পেনশনারের নমিনি ৭৫ বছর পূর্ণ হওয়ার অবশিষ্ট সময় পর্যন্ত পেনশন পাবেন।

 

সিটি নিউজ ঢাকার ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

 

জেকেএস/

অর্থ ও বাণিজ্য সম্পর্কিত আরও

আর্কাইভ