• ঢাকা মঙ্গলবার
    ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

বিবাহবার্ষিকীতে যা লিখলেন স্বরা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪, ০৯:৩০ এএম

বিবাহবার্ষিকীতে যা লিখলেন স্বরা

বিনোদন ডেস্ক

স্বরা ভাস্কর ও ফাহাদ আহমেদ। একজন অভিনেত্রী অন্যজন রাজনীতিবিদ। দুজন শুধু দুই পেশারই নয়, ধর্মগত দিক দিয়েও আলাদা। তবুও ভালোবেসে বিয়ে করেন তারা।

গত বছর (২০২৩) বিয়ে করেছিলেন স্বরা-ফাহাদ। ওই বছরের সেপ্টেম্বরে তাদের ঘরে আসে কন্যাসন্তান। দেখতে দেখতে বিবাহিত জীবনের এক বছর কাটিয়ে ফেললেন তারা। বিবাহবার্ষিকীর দিনে স্বামীকে দিলেন বিশেষ উপহার।

স্বামীকে নিয়ে প্রেমের কবিতা লিখেছিলেন স্বরা। বিবাহবার্ষিকীর দিনেও তেমনই একটি ভালোবাসায় মোড়া চিঠি লিখলেন স্বামীকে।

স্বরা ফাহাদের উদ্দেশে লেখেন, ‘আমি আর ফাহাদ খুব তাড়াতাড়ি বিয়ে করে নিয়েছি। কিন্তু আমাদের বন্ধুত্ব তিন বছরের। আমাদের মধ্যে শুধু ভালোবাসায় মিল। অমিল অনেক কিছু। প্রথমত আমি হিন্দু ও মুসলমান। দ্বিতীয়ত, ফাহাদের চেয়ে বয়সেও আমি বড়। আমাদের দু’জনের বেড়ে ওঠাও সম্পূর্ণ আলাদা পরিবেশে। আমি শহরের মেয়ে। ফাহাদ প্রত্যন্ত গ্রামের। আমি অভিনয় করি। ফাহাদ গবেষণা করে।’

তিনি আরও লেখেন, ‘লোকে কী বলবে সে সব আমি কখনও ভাবতাম না। কিন্তু ফাহাদকে বিয়ের পরিকল্পনার পরেই হঠাৎ করে আমার মনে হলো লোকে কী বলবে। কারণ ও মুসলমান। আমার মনের কথা পড়ে ফেলেছিল ফাহাদ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আমরা আমাদের ভালোবাসার পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। আমাদের অভিভাবকেরাও এই সম্পর্ক মেনে নিয়েছেন। এত অমিল থাকা সত্ত্বেও আমরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলে যেতে পারি। কোনো দ্বিধা থাকে না। আমরা একে-অপরকে নির্ভয়ে সব কথা খুলতে পারি। কোনো আড়ালের দরকার হয় না। তার কারণ আমাদের মধ্যে ভালোবাসা ছিল, আছে আর থাকবে।’

রাজনীতিবিদ ফাহাদের সঙ্গে হঠাৎ বিয়ে সারেন স্বরা। বিয়ের পরে অবশ্য সেই বিশেষ মুহূর্তের ভিডিও ভাগ করে নিয়েছিলেন। তবে স্বরা যে বিয়ে করছেন তা কাকপক্ষীতেও টের পায়নি। কনের বেশে ছবি দিয়ে একেবারে চমকে দিয়েছিলেন অনুরাগীদের। বিয়ের মাসখানেক পরেই এক নতুন সুখবর দিয়েছিলেন। বিয়ের এক মাসের মাথায় মা হওয়ার খবরেও বিস্মিত হয়েছিলেন অনেকেই। তবে স্বামী আর পাঁচ মাসের কন্যাকে নিয়ে স্বরা এখন ভালোই আছেন।

আর্কাইভ